খুঁজুন
রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪, ৮ বৈশাখ, ১৪৩১

রাখাইনে আরাকান আর্মির নেপথ্যে কারা?

ইয়াহিয়া নয়ন
প্রকাশিত: শুক্রবার, ৬ অক্টোবর, ২০২৩, ৯:০৭ অপরাহ্ণ
রাখাইনে আরাকান আর্মির নেপথ্যে কারা?
নির্বাচিত সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখলের পর এখন পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ৯০টি সেনা ঘাঁটি হারিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা বাহিনী। বিগত ১৭ মাসে দেশটির বিভিন্ন নৃ–গোষ্ঠীর সশস্ত্র সংগঠনের কাছে এই ঘাঁটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে। এসব ঘাঁটির মধ্যে বেশ কয়েকটি ঘাঁটিই কৌশলগতভাবে এবং প্রয়োজনীয় অস্ত্র ও রসদ সরবরাহের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলে জানানো হয়েছে মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম ইরাবতী নিউজের এক প্রতিবেদনে।
দিন দিন মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য অস্থিতিশীল হয়ে উঠছে। রাজ্যটি স্বাধীন করতে ভয়ানক হয়ে উঠছে ‘আরাকান আর্মি’। এদিকে মিয়ানমার সরকার এ ‘আরাকান আর্মি’ সংগঠনটিকে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। দেশটি এ গোষ্ঠীকে নিয়ন্ত্রণ করেত মরিয়া হয়ে উঠেছে। ১৮ শতকে বার্মিজদের হামলার আগে ঐতিহাসিকভাবে আরাকান একটি স্বাধীন রাজ্য ছিল। সেই স্বাধীনতা ফিরে পেতে চায় ওরা।
ইতিমধ্যে রাখাইনের পশ্চিমাঞ্চলে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ধ্বংসাত্মক অভিযান চালাতে সামরিক বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে মিয়ানমার সরকার। ফলে ভয়ানক পরিস্থিতির দিকে অগ্রসর হচ্ছে রাখাইন। এদিকে বিদেশি সাহায্য সংস্থাগুলোর কর্মীরা বলছেন, রাজ্যটিতে সহিংসতা চরম রূপ নিয়েছে।
মিয়ানমারের গুলির শব্দে ঘুম ভাঙে সীমান্ত এলাকার মানুষের। কয়েকদিন পরপর মিয়ানমারের অভ্যন্তরে ভারী অস্ত্রের গোলাগুলির শব্দ শুনে আতঙ্কিত থাকে জিরো পয়েন্টে থাকা রোহিঙ্গারা। পাশাপাশি সীমান্ত এলাকার স্থানীয়রাও চরম দুশ্চিন্তায় সময় পার করছেন। ৪ সেপ্টেম্বর থেকে আবারো শুরু হয়েছে গোলাগুলি। বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে বেশ কয়েক দিন ধরে ব্যাপক গোলাগুলি হচ্ছে। গুলির বিকট শব্দে কাঁপছে এপারও। তাতে আতঙ্কে কোনারপাড়ার পার্শ্ববর্তী শূন্যরেখার (নো ম্যানস ল্যান্ড) আশ্রয়শিবিরে থাকা চার হাজারের বেশি রোহিঙ্গা এবং ঘুমধুম ইউনিয়নের কয়েক হাজার বাংলাদেশী।
শূন্যরেখার দিকে কাউকে যেতে দেয়া হচ্ছে না। শূন্যরেখার আশ্রয়শিবিরে ৬২১টি পরিবারে চার হাজার ২০০ জন রোহিঙ্গা আছে। গোলাগুলির শব্দে তারা বেশ আতঙ্কে। গত একমাসে ওপার থেকে আসা গোলার আঘাতে তিন রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছে। দুই বাংলাদেশি যুবকের একটি করে পা উড়ে গেছে।
২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর রাখাইন রাজ্যে সে দেশের সেনাবাহিনীর নিপীড়নের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেয় আট লাখ রোহিঙ্গা। এর আগে আসে আরো কয়েক লাখ। বর্তমানে উখিয়া ও টেকনাফের ৩৩টি আশ্রয়শিবিরে নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা সাড়ে ১২ লাখ। সে সময় ছয় হাজারের বেশি রোহিঙ্গা নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের কোনারপাড়া খালের দক্ষিণে শূন্যরেখায় বসতি শুরু করে। ওই আশ্রয়শিবিরের কয়েক গজ দূরে মিয়ানমার সীমান্ত কাঁটাতার দিয়ে ঘেরা। এই সীমান্ত এলাকায় নজরদারি করে কক্সবাজার ৩৪ বিজিবি ব্যাটালিয়ন। মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলির কারণ জানতে ৩৪ বিজিবি কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেয়নি। তবে প্রতিদিনই ওপারে দুপক্ষের গোলাগুলির আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছে।
মূলত আরাকান আর্মির অধিকাংশ সদস্য এসেছেন নৃতাত্ত্বিক বৌদ্ধ গোষ্ঠীগুলো থেকে। সাম্প্রতিক এসব সহিংসতায় রাখাইনে মারাত্মক নৃতাত্ত্বিক বিভাজন আরও স্পষ্ট হয়ে দেখা দিয়েছে, যা রাজ্যটিতে দীর্ঘদিন ধরে বড় ধরনের ক্ষতের জন্ম দিয়েছে। রাখাইনে স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে এক দশক আগে আরাকান আর্মি গঠিত হয়েছে। বিচ্ছিন্ন কেন্দ্রীয় সরকারের মাধ্যমে তারা শোষিত হচ্ছেন বলে দাবি করছে সংগঠনটি। শুরুর দিকে তাদের অনেক সদস্য রাখাইন বৌদ্ধদের মধ্য থেকে সংগ্রহ করা হয়েছিল। এসব বৌদ্ধ জেড পাথরের খনিতে কাজ করে ভাগ্য নির্ধারণে উত্তর মিয়ানমারে গিয়েছিলেন।
চীনের সঙ্গে মিয়ানমার সীমান্তে তাদের জড়ো করে প্রশিক্ষণ দিয়েছে কাচিন মুক্তি বাহিনী (কেআইএ)। এ সংগঠনটিই অত্র অঞ্চলে প্রাধান্য বিস্তার করেছে। মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়া সবচেয়ে বড় নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠী হচ্ছে কাচিনরা। ২০১৬ সালের শেষ দিক থেকে শান রাজ্যে উত্তরাঞ্চলীয় জোটের অংশ হিসেবে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে কাচিনদের পাশাপাশি লড়াইয়ে নেমেছিল আরাকান আর্মির যোদ্ধারা। ভারত ও বাংলাদেশ সীমান্তের পশ্চিমাঞ্চলীয় পাহাড়ি অঞ্চলেও চলাচল রয়েছে আরাকান আর্মির। সেখানে তাদের কয়েক হাজার সদস্য রয়েছে বলে মনে করা হয়।
রাখাইনে ২০২০ সাল নাগাদ একটি বিদ্রোহ উসকে দিতে লড়াইয়ের পাশাপাশি প্রচারও চালাচ্ছে আরাকান আর্মি। অনলাইনে ভিডিওতে দেখা গেছে, বিদ্রোহী তরুণ ও তরুণীরা কুচকাওয়াজ ও মুষ্টিযুদ্ধ চর্চা করছেন। তারা আধুনিক অ্যাসল্ট ও স্নাইপার রাইফেল দিয়ে গুলি ছুড়ছেন। আরাকান আর্মির আধ্যাত্মিক নেতা টিওয়ান এমরাট নেয়াংকেও মাঝে মাঝে দেখানো হয়েছে ভিডিওতে।
নিজেদের প্রচারে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে রাখাইনকে বিভক্ত করে দেয়া বৌদ্ধ ও রোহিঙ্গা মুসলমানদের সহিংসতাকে এড়িয়ে গেছে আরাকান আর্মি। তবে প্রচারে অর্থনৈতিক শোষণ ও ঐতিহাসিক অবিচারের বিবরণ দিতে গিয়ে সেখানকার উর্বর ভূমির কথা সামনে নিয়ে এসেছেন তারা। সে ক্ষেত্রে আরাকান আর্মির অভিযোগের তীর মিয়ানমার রাষ্ট্র ও বার্মার নৃতাত্ত্বিক সংখ্যাগরিষ্ঠদের দিকে। গত কয়েক বছরে সামরিক বাহিনীর সঙ্গে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ হয়েছে আরাকান আর্মির। কিন্তু গত কয়েক মাসে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কয়েক ডজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে বিদ্রোহী গোষ্ঠীটি। এখন এই লড়াই চরম আকারে পৌঁছেছে। রাখাইনে বেসামরিক লোকজনকে লক্ষ্যবস্তু করে সামরিক আগ্রাসনের জবাব দিচ্ছেন তারা।
আরাকান আর্মির প্রধান টিওয়ান এমরাট নেয়াং স্থানীয় গণমাধ্যম ইরাবতীকে বলেন, রাখাইন রাজ্যের অবশ্যই নিজস্ব সেনাবাহিনী থাকতে হবে। একটি সশস্ত্র গোষ্ঠী থাকার অর্থ হচ্ছে- রাখাইনের নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীগুলোর অস্তিত্ব টিকে থাকবে।
বিশ্লেষকরা বলছেন, কাচিন বিদ্রোহীদের কাছে প্রশিক্ষণ নেয়া আরাকান আর্মি মিয়ানমারের জন্য সম্ভাব্য বড় ধরনের সামরিক হুমকি হিসেবে দেখা দিয়েছে। যেটি আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী। মিয়ানমারের দক্ষিণাঞ্চলের শান রাজ্যে দেশটির প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সঙ্গে তীব্র লড়াইয়ে জান্তা সেনাবাহিনীর অন্তত ৮৫ সদস্য নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে সৈন্যদের প্রাণহানির পর কয়েক দিন ধরে এই রাজ্যের পেকোন শহরের মোইবিতে বিমান থেকে গোলা ও কামান হামলা চালাচ্ছে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী।
থাইল্যান্ডভিত্তিক মিয়ানমারের ইংরেজি দৈনিক দ্য ইরাবতির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, শান রাজ্যের মোইবি শহরে গত চার দিন ধরে বিমান ও কামান হামলা চালিয়ে আসছে সামরিক বাহিনী। প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সাথে সংঘর্ষে সেনাবাহিনীর ৮০ জনের বেশি সদস্য নিহত হওয়ার পর হামলার তীব্রতা বৃদ্ধি করেছে মিয়ানমার জান্তা।
রাখাইন রাজ্যের অভ্যন্তরে কি ঘটছে তার সঠিক তথ্য কারো কাছে নেই। সীমান্তে বসবাসকারীদের তথ্যে ধারনা করা যায় আরাকান আর্মি অনেক এলাকা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিয়েছে। তাদের এই সফলতার পেছনে অন্যদের সঙ্গে রোহিঙ্গাদেরও সহযোগিতা রয়েছে। ওপাড়ে সংঘাত চলমান, তাই সবটুকু মন্তব্য করা যাচ্ছেনা।
ইউকে/পিআর

বীরগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ টি পদে ১৩ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪, ৮:০০ অপরাহ্ণ
বীরগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ টি পদে ১৩ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের সাধারণ নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২১ এপ্রিল। মনোনয়ন বাছাই ২৩ এপ্রিল। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ৩০ এপ্রিল। আগামী ২১ মে এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিন রবিবার বীরগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ৬জন মনোনয়ন দাখিল করেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩জনের মনোনয়নপত্র দাখিল চেয়ারম্যান পদে দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু হুসাইন বিপু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক কোষাধ্যক্ষ মোঃ মনোয়ার হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ ওয়াহেদুজ্জামান বাদশা, দিনাজপুর জেলা বিএনপির উপদেষ্টা মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম (রিজু), শতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কে.এম কুতুব উদ্দিন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

ভাইস-চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মোনায়েম মিয়া, ইঞ্জিনিয়ার পরিমল কুমার রায়, মেঃ রশিদুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা মোঃ মামুনুর রহমান মামুন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ আয়শা আক্তার বৃষ্টি, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ শাহানাজ পারভীন, অনিতা রায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আঁখি সরকার জানান, উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌর সভায় মোট ভোটারের সংখ্যা ২৬৫৫৩৫জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩৩৬৭৫জন এবং মহিলা ভোটার ১৩৮৮৫৯জন।

সারাদেশে ইন্টারনেটের গতি কম

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৫৮ অপরাহ্ণ
সারাদেশে ইন্টারনেটের গতি কম

দেশজুড়ে ইন্টারনেটের গতি ধীর। শুক্রবার মধ্যরাত ইন্টারনেটের গতি কমেছে। শনিবার সকাল থেকে সমস্যা আরও বেড়েছে। বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলস পিএলসি (বিএসসিপিএলসি) জানিয়েছে, সিঙ্গাপুরে ফাইবার কেবল ‘ব্রেক’ করায় এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ফলে ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানসহ গ্রাহকেরা ইন্টারনেটে ধীরগতি পাচ্ছেন।

বিএসসিপিএলসি-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মির্জা কামাল আহমেদ গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, সিমিউই-৫ দিয়ে দেশে ১ হাজার ৬০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইডথ সরবরাহ হয়। এর পুরোটাই এখন বন্ধ আছে। আমরা চেষ্টা করছি সিমিউই-৪ (প্রথম সাবমেরিন কেবল) দিয়ে বিকল্প ব্যবস্থা করতে। সিঙ্গাপুরে ফাইবার কেবল ব্রেক করায় বাংলাদেশের পাশাপাশি আরও কয়েকটি দেশে একই অবস্থা তৈরি হয়েছে।

তিনি জানান, আজ শনিবার বিকেলের মধ্যে জানা যাবে, এটা কবে নাগাদ স্বাভাবিক হবে।

 

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (আইএসপিএবি) সভাপতি ইমদাদুল হক জানিয়েছেন, ইন্টারনেটের গতি কম হওয়ায় গ্রাহকরা তাদের কাছে ফোন করে অভিযোগ জানাচ্ছেন

ঈদযাত্রায় ৪১৯ দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩৮

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৫০ অপরাহ্ণ
ঈদযাত্রায় ৪১৯ দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩৮

পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে ও পরে সারাদেশে সড়ক, রেল ও নৌ পথে মোট ৪১৯টি দুর্ঘটনায় ৪৩৮ জন নিহত হয়েছেন। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন এক হাজার ৪২৪ জন।

শনিবার (২০ এপ্রিল) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি। সংগঠনটির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ পরিসংখ্যান তুলে ধরেন।

মোজাম্মেল হক চৌধুরী জানান, সড়ক-মহাসড়কে ৩৯৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪০৭ জন নিহত ও এক হাজার ৩৯৮ জন আহত হয়েছেন।

তিনি আরও জানান, রেল পথে ১৮টি দুর্ঘটনায় ২৪ জনের মৃত্যু ও ২১ জন আহত হয়েছেন। নৌ পথে দুটি দুর্ঘটনায় সাতজনের মৃত্যু ও পাঁচজন আহত হয়েছেন।

"> ">
বীরগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ টি পদে ১৩ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল সারাদেশে ইন্টারনেটের গতি কম ঈদযাত্রায় ৪১৯ দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩৮ দাবদাহে পুড়ছে দেশ, ঘরে-বাইরে কোথাও নেই স্বস্তি তাপদাহের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অ্যাসেম্বলি বন্ধ রাখার নির্দেশ সিসি ক্যামেরার আওতায় আসবে কক্সবাজার ছাতকের জাউয়া বাজারসহ তার আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি পীরগঞ্জে কৃষকলীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সারাদেশে তিন দিনের হিট অ্যালার্ট জারি এখনই ‘প্রতিশোধে’ যাচ্ছে না ইরান নিজ বাহিনীতে ফিরে গেলেন র‌্যাবের মুখপাত্র মঈন শিশু হাসপাতালের আগুন নিয়ন্ত্রণে থার্ড টার্মিনালের দেয়াল ভেঙে ভেতরে বাস, প্রাণ গেল প্রকৌশলীর বীরগঞ্জে আশ্রয়ণ প্রকল্পের জরাজীর্ণ ব্যারাকের  ঘরের নির্মাণ কাজে জেলা প্রশাসক পরিদর্শন কাহারোলে  ছাত্রলীগের ঈদ ও বৈশাখী কনসার্ট অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গায় ইঞ্জিন বিকল, ৩ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক ইউক্রেন যুদ্ধে ৫০ হাজারের বেশি রুশ সেনা নিহত নারাইনকে বিশ্বকাপে ডাকছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সংকট থেকে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে বাংলাদেশ: অর্থমন্ত্রী বগুড়ায় ২২ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২ বগুড়ার শেরপুরে নদীতে গোসল করতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু বীরগঞ্জে বাংলা নববর্ষ ও মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি বিছনাকন্দি ইউপির সাধারণ নির্বাচন স্থগিত যাত্রী সংকটে ধুঁকছে গাবতলী সৌদির সঙ্গে মিল রেখে ঝিনাইদহে ঈদুল ফিতরের জামাত ঈদের নামাজের জন্য প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ ঈদের একদিন আগেই ফাঁকা উত্তরের মহাসড়ক