খুঁজুন
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ, ১৪৩১

চাঁদপুর-২ আসনে

জনপ্রিয়তায় শীর্ষে এমপি নুরুল আমিন রুহুল

মতলব উত্তর প্রতিবেদক (চাঁদপুর)
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২৩, ৭:৩২ অপরাহ্ণ
জনপ্রিয়তায় শীর্ষে এমপি নুরুল আমিন রুহুল

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার সফলতায় এবং জাতীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ও সাংগঠনিক কর্মকান্ডে চাঁদপুরের মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ উপজেলায় জনপ্রিয়তায় শীর্ষে অবস্থান করছে চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল।

দলীয় কর্মকান্ড জোরধার এবং সরকারের উন্নয়নমূলক কাজের বার্তা সর্বস্তরের মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে প্রায় সময়ই গাড়ী অথবা মোটর সাইকেল চালিয়ে একা একা অভিযানে বের হন তিনি। এসময় প্রান্তিক মানুষের অভাব অভিযোগের কথা শুনেন এবং সমাধানের ব্যবস্থা করেন অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল।

এতে মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণের মানুষের ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন তিনি। এখানকার তৃণমূল পর্যায়ের মানুষও খুশি। দ্বাদশ জাতীয় সংদস নির্বাচনের আগেও মাঠে এখন এই একটাই নাম অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল। দলীয় শৃংখলা রক্ষায় মতলবে আওয়ামী লীগের প্রতিটি সংগঠনকে তিনি ঐক্যবদ্ধ রেখেছেন। সপ্তাহে তিনদিন তাঁর নির্বাচনী এলাকায় থেকে মানুষের সুখ-দুঃখের কথা শোনেছেন, সমাধান করেছেন। এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ডের পাশাপাশি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন সক্রিয়ভাবে। করোনাকালিন সময়ে নিজ অর্থায়নে ১ লক্ষাধিক পরিবার, দলীয় কর্মী ও কর্মহীন মানুষের মাঝে সহায়তা প্রদান এবং প্রতিটি ঈদে ঈদ উপহার সামগ্রী প্রদান করেন।

এ সময় তিনি মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণের জনগনের পাশে থেকে সহায়তা করার সময় তিনি ৩ বার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল এমপি দীর্ঘ ৫ ধরে সংসদ সদস্য হিসাবে সাধারণ মানুষের মধ্যে এলাকার শীতার্ত মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ, অসহায় ও দরিদ্রদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান, খাবার বিতরণ, মসজিদ মাদ্রাসা ও এতিমখানার উন্নয়নে সহায়তা করা, শিক্ষার উন্নয়নে নাউরী আদর্শ ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছেন, মানবিক এবং সামাজিক নানা কল্যাণকর কর্মকান্ডের সম্পাদনের কারণে এলাকার জনগণের মাঝে জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছেন। তিনি প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে মতলব-গজারিয়া ঝুলন্ত সেতু একনেকে অনুমোদন, ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে দুই উপজেলার দুটি মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, ১২০ কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার, দুই উপজেলায় দুটি দৃষ্টিনন্দন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশন, ৫৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে দাউদকান্দি-ছেংগারচর মহাসড়ক, মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্প বেড়িবাঁধ আঞ্চলিক মহাসড়ক নির্মাণ, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড ৩৪৭ কোটি ৬৫ লাখ টাকা ব্যয়ে মেঘনা-ধনাগোদা সেচ প্রকল্প এলাকায় উন্নয়ন প্রকল্প, উপজেলার প্রায় সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৪তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মিত করেন, মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, নদীশাসন প্রকল্পের আওতায় মেঘনা-ধনাগোদা নদীর তীর রক্ষা, কালিপুর বাজারে আধুনিক মার্কেট নির্মাণ’সহ বিভিন্ন বাজারের উন্নয়নকরণ, মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ উপজেলায় সাবরেজিষ্ট্রি অফিসের ভবন নির্মাণ, কমিউনিটি ক্লিনিক নির্মাণসহ স্বাস্থ্যসেবায় পরিবর্তন এনেছেন।

চরাঞ্চলে সাব মেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে বিদ্যুতায়নের ব্যবস্থা করে চরবাসীর দীর্ঘদিনের আশা বাস্তবায়ন করেছেন। গত পাঁচ বছরে মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে। এছাড়াও আরো ৫ হাজার কোটি টাকার কাজ বাস্তবায়নের অপেক্ষায় রয়েছে। মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিন উপজেলার ৩টি পৌরসভা ও ১৯টি ইউনিয়নের মানুষ শান্তিতে দিনযাপন করেছেন। বৃহত্তর মতলবে আলহাজ্ব অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুলকে শান্তিরদূত হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পরপরই মেঘনা নদীতে বালু উত্তোলন বন্ধে ডিও লেটার দিয়ে মেঘনা নদীর মতলব সীমানায় বালু উত্তোলন বন্ধ করেন। প্রতি বছর নিজ তহবিল হতে দলীয় কর্মীসহ অসহায় মানুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ, কন্যাদায়গ্রস্ত বাবার মেয়ের বিয়েতে অর্থ সহায়তা প্রদান, গরিব মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিক সহায়তা, চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তাসহ মানুষের যে কোনো বিপদে নুরুল আমিন রুহুল কাজ করে যাচ্ছেন।

মতলবের জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বতর্মান আওয়ামলীগ সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আস্থা অজর্ন করেছে এখানকার তৃণমূল পর্যায়ের মানুষ। দিনদিন এই সংগঠনটির ভিত মজবুত হয়ে উঠেছে এখানকার গ্রাম পর্যায়েও। প্রতিটি গ্রামেই রয়েছে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের ব্যাপক তৎপরতা। উন্নয়নের পাশাপাশি মানবসেবায় কাজ করে যাচ্ছে দলটির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। জননেত্রী শেখ হাসিনার গ্রাম ও শহরের ব্যবধান কমানোর ঘোষিত সফলতার ১ম ধাক্কা লেগেছে মতলবে। আর তা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধুর আর্দশ সৈনিক বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ জাতীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুলের বলিষ্ঠ নেতৃত্বের বদৌলতে। মতলবের তৃণমূল পর্যায়ে সুসংগঠিত হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ। এখানকার প্রতিটি ওয়ার্ডে ও গ্রামে রয়েছে আওয়ামীলীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের কমিটি। উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনেও শতভাগ জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।

মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও গজরা ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহীদ উল্যাহ প্রধান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর একজন আদর্শ সৈনিক জাতীয় সংসদ সদস্য নুরুল আমিন রুহুল। স্কুল থেকে ছাত্রলীগ করা এ নেতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক, অবিভক্ত ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি দাযিত্ব পালনের মধ্যদিয়ে মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের সমন্বয় করে গত পাঁচ বছর উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করেছেন। তিনি দলকে তৃণমুল পর্যায়ে সংগঠিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. লিয়াকত হোসেন বলেছেন, মতলব দক্ষিণ আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করে গেছেন বঙ্গন্ধুর আদর্শের সৈনিক নুরুল আমিন রুহুল ।

উত্তরের কন্ঠ /এ,এস 

বগুড়ায় বৃষ্টি চেয়ে কাঁদলেন মুসল্লিরা

জেলা প্রতিবেদক, বগুড়া
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১:১০ অপরাহ্ণ
বগুড়ায় বৃষ্টি চেয়ে কাঁদলেন মুসল্লিরা

তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। তীব্র গরমে বৃষ্টি প্রত্যাশা করে ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের ভবানীপুর এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

বৃহঃবার সকাল ৯ ঘটিকার সময় দিকে ভবানীপুর মসজিদ প্রাঙ্গনে খোলা আকাশের নিচে এ নামাজের আয়োজন করেন স্থানীয় মুসল্লিরা।

এতে বিভিন্ন এলাকায় প্রায় শতাধিক মুসল্লি অংশ নেন। নামাজের ইমামতি করেন সাবেক সংসদ সদস্য মাওলানা শাহাদুজ্জামান। নামাজ শেষে বৃষ্টির আশায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এসময় মুসল্লিরা উল্টো হাতে কেঁদে কেঁদে বৃষ্টি প্রত্যাশায় দোয়া করেন।

স্থানীয়রা জানান, বৃষ্টির অভাবে জনজীবন অতিষ্ঠ, খাল-বিল, নদী-নালা শুকিয়ে চৌচির হয়ে গেছে। পানির অভাবে চাষাবাদও মারাত্মক ভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে মাঠের ফসল। এ কারণেই আল্লাহ তায়ালার দরবারে বৃষ্টি চেয়ে এলাকাবাসী খোলা মাঠে নামাজ আদায় ও দোয়ার আয়োজন করেন।

এছাড়াও উপজেলার শব্দলদিঘী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ও সদর উপজেলার গোদারপাড়ায় সকাল সাড়ে ৮ ঘটিকার সময় ইসতিকার সালাত আদায় করে স্থানীয়রা।

নওগার সাপাহারে বৃষ্টি চেয়ে কাঁদলেন মুসল্লিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাপাহার
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১:০৫ অপরাহ্ণ
নওগার সাপাহারে বৃষ্টি চেয়ে কাঁদলেন মুসল্লিরা

তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। তীব্র গরমে বৃষ্টি প্রত্যাশা করে ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন সাপাহার উপজেলার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

বৃহঃবার সকাল ৯ ঘটিকার সময় সাপাহার শরফাতুল্লাহ ফাজিল মাদ্রাসার আয়োজনে মাদ্রাসা মাঠ প্রাঙ্গনে খোলা আকাশের নিচে এ নামাজ আদায় করেন স্থানীয় মুসল্লিরা।

এতে বিভিন্ন এলাকায় প্রায় শতাধিক মুসল্লি অংশ গ্রহণ করেন। ইমাম নামাজের মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে নামাজের নিয়ম-কানুন বলেন এরপর দুই রাকাত নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে দুই হাত তুলে প্রচন্ড গরম তীব্র তাবপ্রদাহ ও খরা থেকে রক্ষা পেতে বৃষ্টি প্রার্থনা করেন মহান আল্লাহর দরবারে বিশেষ দোয়া প্রার্থনা করেন সকলের চোখে জল ঝরে মোনাজাত ও ক্ষমাপ্রার্থনা করেন ইমাম ও মোসল্লীরা নামাজ শেষে বৃষ্টির আশায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এসময় মুসল্লিরা উল্টো হাতে কেঁদে কেঁদে বৃষ্টি প্রত্যাশায় দোয়া করেন।

নামাজে ইমামতি ও দোয়া পরিচালনা করেন সাপাহার সরফাতুল্লাহ ফাজিল মাদ্রাসার প্রভাষক ও হেফজুল বিভাগের প্রধান এবং সাপাহার মডেল মসজিদের সাবেক ইমাম মাওলানা ওমর ফারুক।

বৃষ্টির প্রার্থনায় বীরগঞ্জে ‘সালতুল ইস্তিসকার’ নামাজ আদায়

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ণ
বৃষ্টির প্রার্থনায় বীরগঞ্জে ‘সালতুল ইস্তিসকার’ নামাজ আদায়

সূর্যের আলোর প্রখরতা, তীব্র দাবদাহে মানুষ অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। হয়েছে আবহাওয়ার পালাবদল। তীব্র গরম থেকে মুক্তি পেতে দিনাজপুরের বীরগঞ্জের ভোগনগর ইউনিয়নের রহিম বখস্ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বৃষ্টির আশায় সালাতুল ইস্তেসকার নামাজ ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল ২০২৪) সকাল সাড়ে দশটার সময় ইস্তেসকার নামাজ অনুষ্টিত হয়। বীরগঞ্জ ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মোঃ মিরাজ রহমান নামাজে ইমামতি করেন। এতে শতাধীক মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। গত এক মাস আগেও বীরগঞ্জের যেখানে তাপমাত্রা ছিলো ২০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের নিচে। মাস খানেক পরেই সেখানে বেড়ে দাড়িয়েছে ৪৩ এর কোঁঠায়।

তীব্র রোদ আর ভ্যাবসা গরমে অস্থির জন-জীবন। বৃষ্টি না হওয়া স্বস্তির নিশ্বাস নিতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। এই গরমে দেখা দিয়েছে খড়তা। বৃষ্টি না হওয়ায় নষ্ট হচ্ছে জমির ফসল। অপর দিকে নষ্ট হচ্ছে গাছের ফল। কিছু অঞ্চলে পানির স্তর নেমে যাওয়ায় টিউবওয়েল থেকে ঠিকমত উঠছে না পানি।

ভোগনগর ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান রাজিউর রহমান রাজু বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশে অনাবৃষ্টি ও তীব্র দাবদাহের কারনে জন-জীবন কষ্টকর হয়ে দাড়িয়েছে। পশু-পাখী, গাছ-পালা সহ সকলের জন্য অত্যন্ত পানি প্রয়োজন হওয়া আমরা এলাকার যুবকরা মিলে সালাতুর ইস্তেসকার নামাজের আয়োজন করি।’

হাসিনুর ইসলাম বলেন, ‘আমরা এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে খোলা ময়দানে ইস্তেসকার নামাজ আদায় করেছি। অনাবৃষ্টির ফলে তীব্র গরমের কারণে শিশু, বৃদ্ধ, পশুপাখি সকলে কষ্টে জীবনযাপন করছে। রোজাদারদের অনেক কষ্ট হচ্ছে। গরমের কারণে বাচ্চারা পড়ালেখায় মন বসাতে পারছে না। বৃদ্ধরা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।’

হাফেজ মো: জাহেদুল ইসলাম বলেন, ‘রাসূল (সাঃ) অনাবৃষ্টি ও দূর্ভিক্ষের জন্য সাহাবীদের নিয়ে খোলা ময়দানে ইস্তেসকার সালাত আদায় করেছিলেন। নবী রাসূলের সুন্নাত কে আকড়ে ধরার জন্য বর্তমান বাংলাদেশে অনাবৃষ্টি দেখা দিয়েছে। আমরা খোলা মাঠে সালাতুল ইস্তেসকা নামাজ আদায় করেছি।’

সালাতুল ইস্তেসকার নামাজ ও বিশেষ মোনাজাতে উপস্থিত ছিলেন ভোগনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ এলাকার সকল মুসল্লিগণ।

নামাজ শেষে বৃষ্টির আশায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এ সময় মুসল্লিরা কাঁদতে কাঁদতে আল্লাহর দরবারে দুই হাত তুলে বীরগঞ্জ উপজেলাসহ পুরো বাংলাদেশে বৃষ্টি বর্ষণের জন্য দোয়া করেন।

"> ">
বগুড়ায় বৃষ্টি চেয়ে কাঁদলেন মুসল্লিরা নওগার সাপাহারে বৃষ্টি চেয়ে কাঁদলেন মুসল্লিরা বৃষ্টির প্রার্থনায় বীরগঞ্জে ‘সালতুল ইস্তিসকার’ নামাজ আদায় বগুড়ায় বৃষ্টির প্রত্যাশায় ইসতিকার নামাজ আদায় শেরপুরে প্রচন্ড তাপদাহে কৃষকের মৃত্যু বগুড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃত্যু বোচাগঞ্জে সড়ক নির্মান কাজে ধীরগতি দুর্ঘটনা আর ধুলোবালুতে অতিষ্ঠ পথচারী বীরগঞ্জে প্রাণি সম্পদ সেবা প্রদর্শণী সমাপনীতে পুরস্কার বিতরণ পীরগঞ্জে ভূমি অধিকার বিষয়ক সমাবেশ বগুড়ায় সিনেমা দেখলে বিরিয়ানি ফ্রি আমরা জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার হ্রাস করেছি : শেখ হাসিনা যে দোয়া পড়লে আপনার জন্য জান্নাত ফরিয়াদ করবে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশনে ত্রুটি, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ ৩১ মে আলোচনায় বসতে পাঠানো হয়েছে চিঠি ফের এফ এ কাপের ফাইনালে ম্যানচেস্টার ডার্বি আরও তিন দিনের ‘হিট অ্যালার্ট’ জারি বীরগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ টি পদে ১৩ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল সারাদেশে ইন্টারনেটের গতি কম ঈদযাত্রায় ৪১৯ দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩৮ দাবদাহে পুড়ছে দেশ, ঘরে-বাইরে কোথাও নেই স্বস্তি তাপদাহের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অ্যাসেম্বলি বন্ধ রাখার নির্দেশ সিসি ক্যামেরার আওতায় আসবে কক্সবাজার ছাতকের জাউয়া বাজারসহ তার আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি পীরগঞ্জে কৃষকলীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সারাদেশে তিন দিনের হিট অ্যালার্ট জারি এখনই ‘প্রতিশোধে’ যাচ্ছে না ইরান নিজ বাহিনীতে ফিরে গেলেন র‌্যাবের মুখপাত্র মঈন শিশু হাসপাতালের আগুন নিয়ন্ত্রণে থার্ড টার্মিনালের দেয়াল ভেঙে ভেতরে বাস, প্রাণ গেল প্রকৌশলীর বীরগঞ্জে আশ্রয়ণ প্রকল্পের জরাজীর্ণ ব্যারাকের  ঘরের নির্মাণ কাজে জেলা প্রশাসক পরিদর্শন