খুঁজুন
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ, ১৪৩১

ঘূর্ণিঝড় মিধিলি

টানা বৃষ্টিতে চট্টগ্রামে নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২৩, ৪:২৭ অপরাহ্ণ
টানা বৃষ্টিতে চট্টগ্রামে নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় মিধিলির প্রভাবে চট্টগ্রামে বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সকাল থেকে কোথাও গুঁড়িগুঁড়ি আবার কোথাও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে চট্টগ্রাম নগরের নিম্নাঞ্চলে জলাবদ্ধতা তৈরি হয়েছে। বিভিন্ন সড়কে গোড়ালি থেকে হাঁটু পরিমাণ পর্যন্ত পানি দেখা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নগরের বাকলিয়া, কাতালগঞ্জ, বাদুরতলা, বড়গ্যারেজ, চকবাজার, হালিশহর, মুরাদপুরসহ বিভিন্ন এলাকার সড়কে পানি জমেছে। এসব এলাকায় দৈনন্দিন প্রয়োজনে বের হওয়া লোকজন ভোগান্তিতে পড়েছেন।

বেসরকারি চাকরিজীবী ইমরান উদ্দিন বলেন, বৃষ্টি হলে চট্টগ্রামে পানি উঠবে, এটাই স্বাভাবিক। গত বর্ষায় নগরের লোকজনকে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছি। এখন ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে অসময়ে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এ কারণে লোকজনকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে, টানা বৃষ্টি হওয়ায় নগরের বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ধসের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ কারণে পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসরতদের আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে বলেছে জেলা প্রশাসন। নগরের আকবরশাহ এক নম্বর, দুই নম্বর, তিন নম্বর ঝিল ও বিজয়নগরসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে।

এছাড়া আবহাওয়া অধিদপ্তর চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলেছে। এরপর বন্দর নিজেদের নিয়মানুযায়ী দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সতর্কতা ‘অ্যালার্ট-৩’ জারি করে যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়েছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. ছাইফুল্লাহ মজুমদার জানান, বর্তমানে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের কাছে ত্রাণের জন্য ২২ লাখ ৩০ হাজার টাকা, ২৪৪ মেট্রিক টন চাল, ৬ লাখ ৮০ হাজার টাকার মূল্যের গো-খাদ্য, সমপরিমাণ মূল্যের শিশুখাদ্য, ৪৭২ ব্যাগ শুকনা খাবার, ১ হাজার পিস কম্বল এবং ৪৭ হাজার ওরস্যালাইন মজুত রয়েছে। পরিস্থিতি পর্যালোচনায় এসব সামগ্রী দ্রুত বরাদ্দ দেওয়া হবে।

ঘূর্ণিঝড় সংক্রান্ত আবহাওয়ার ১০ নম্বর  বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড়টি দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৩১০ কি.মি. পশ্চিম-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৩১০ কি.মি. পশ্চিম-দক্ষিণপশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৪৫ কি.মি. দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৫০ কি.মি. দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।

ঘূর্ণিঝড়টির অগ্রভাগ দুপুরে খেপুপাড়ার কাছ দিয়ে মোংলা-পায়রা উপকূল অতিক্রম শুরু করেছে এবং আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে আজ সন্ধ্যা নাগাদ অতিক্রম সম্পন্ন করতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়টির অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং এর অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলোর ওপর দিয়ে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কি.মি. এর মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কি.মি. যা দমকা অথবা বড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কি.মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।

বৃষ্টির প্রার্থনায় বীরগঞ্জে ‘সালতুল ইস্তিসকার’ নামাজ আদায়

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ণ
বৃষ্টির প্রার্থনায় বীরগঞ্জে ‘সালতুল ইস্তিসকার’ নামাজ আদায়

সূর্যের আলোর প্রখরতা, তীব্র দাবদাহে মানুষ অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। হয়েছে আবহাওয়ার পালাবদল। তীব্র গরম থেকে মুক্তি পেতে দিনাজপুরের বীরগঞ্জের ভোগনগর ইউনিয়নের রহিম বখস্ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বৃষ্টির আশায় সালাতুল ইস্তেসকার নামাজ ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল ২০২৪) সকাল সাড়ে দশটার সময় ইস্তেসকার নামাজ অনুষ্টিত হয়। বীরগঞ্জ ফাজিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মোঃ মিরাজ রহমান নামাজে ইমামতি করেন। এতে শতাধীক মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। গত এক মাস আগেও বীরগঞ্জের যেখানে তাপমাত্রা ছিলো ২০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের নিচে। মাস খানেক পরেই সেখানে বেড়ে দাড়িয়েছে ৪৩ এর কোঁঠায়।

তীব্র রোদ আর ভ্যাবসা গরমে অস্থির জন-জীবন। বৃষ্টি না হওয়া স্বস্তির নিশ্বাস নিতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। এই গরমে দেখা দিয়েছে খড়তা। বৃষ্টি না হওয়ায় নষ্ট হচ্ছে জমির ফসল। অপর দিকে নষ্ট হচ্ছে গাছের ফল। কিছু অঞ্চলে পানির স্তর নেমে যাওয়ায় টিউবওয়েল থেকে ঠিকমত উঠছে না পানি।

ভোগনগর ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান রাজিউর রহমান রাজু বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশে অনাবৃষ্টি ও তীব্র দাবদাহের কারনে জন-জীবন কষ্টকর হয়ে দাড়িয়েছে। পশু-পাখী, গাছ-পালা সহ সকলের জন্য অত্যন্ত পানি প্রয়োজন হওয়া আমরা এলাকার যুবকরা মিলে সালাতুর ইস্তেসকার নামাজের আয়োজন করি।’

হাসিনুর ইসলাম বলেন, ‘আমরা এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে খোলা ময়দানে ইস্তেসকার নামাজ আদায় করেছি। অনাবৃষ্টির ফলে তীব্র গরমের কারণে শিশু, বৃদ্ধ, পশুপাখি সকলে কষ্টে জীবনযাপন করছে। রোজাদারদের অনেক কষ্ট হচ্ছে। গরমের কারণে বাচ্চারা পড়ালেখায় মন বসাতে পারছে না। বৃদ্ধরা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।’

হাফেজ মো: জাহেদুল ইসলাম বলেন, ‘রাসূল (সাঃ) অনাবৃষ্টি ও দূর্ভিক্ষের জন্য সাহাবীদের নিয়ে খোলা ময়দানে ইস্তেসকার সালাত আদায় করেছিলেন। নবী রাসূলের সুন্নাত কে আকড়ে ধরার জন্য বর্তমান বাংলাদেশে অনাবৃষ্টি দেখা দিয়েছে। আমরা খোলা মাঠে সালাতুল ইস্তেসকা নামাজ আদায় করেছি।’

সালাতুল ইস্তেসকার নামাজ ও বিশেষ মোনাজাতে উপস্থিত ছিলেন ভোগনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ এলাকার সকল মুসল্লিগণ।

নামাজ শেষে বৃষ্টির আশায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এ সময় মুসল্লিরা কাঁদতে কাঁদতে আল্লাহর দরবারে দুই হাত তুলে বীরগঞ্জ উপজেলাসহ পুরো বাংলাদেশে বৃষ্টি বর্ষণের জন্য দোয়া করেন।

বগুড়ায় বৃষ্টির প্রত্যাশায় ইসতিকার নামাজ আদায়

জেলা প্রতিবেদক, বগুড়া
প্রকাশিত: বুধবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৪, ৮:০০ অপরাহ্ণ
বগুড়ায় বৃষ্টির প্রত্যাশায় ইসতিকার নামাজ আদায়

তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। তীব্র গরমে বৃষ্টি প্রত্যাশা করে ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন বগুড়ার সদর উপজেলার গোকুল এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে গোকুল তছলিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে খোলা আকাশের নিচে এ নামাজের আয়োজন করেন স্থানীয় মুসল্লিরা। এতে বিভিন্ন এলাকায় প্রায় শতাধিক মুসল্লি অংশ নেন।

নামাজের ইমামতি করেন গোকুল কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠের খতিব মাওলানা আমিনুর রহমান। নামাজ শেষে বৃষ্টির আশায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এসময় মুসল্লিরা কেঁদে কেঁদে বৃষ্টি প্রত্যাশায় দোয়া করেন। উক্ত ইসতিকার নামাজে উপস্থিত ছিলেন, গোকুল কেন্দ্রীয় মসজিদের ঈমাম তাজুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারিকুল ইসলাম, মসজিদ সহ সাধারন সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, ডাঃ মিটন, রাব্বি ইসলাম, মেহেদী হাসান মিঠু, সৈয়দ শামীম আহমেদ সহ শতাধিক ধর্মপ্রান মুসল্লি।

স্থানীয়রা জানান, বৃষ্টির অভাবে জনজীবন অতিষ্ঠ, খাল-বিল, নদী-নালা শুকিয়ে চৌচির হয়ে গেছে। পানির অভাবে চাষাবাদও মারাত্মক ভাবে ব্যাহত হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে মাঠের ফসল। এ কারণেই আল্লাহ তায়ালার দরবারে বৃষ্টি চেয়ে এলাকাবাসী খোলা মাঠে নামাজ আদায় ও দোয়ার আয়োজন করেন।

শেরপুরে প্রচন্ড তাপদাহে কৃষকের মৃত্যু

মোঃ নজরুল ইসলাম জাকি
প্রকাশিত: বুধবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৪, ৬:০১ অপরাহ্ণ
শেরপুরে প্রচন্ড তাপদাহে কৃষকের মৃত্যু
বগুড়ার শেরপুরে হিট স্ট্রোকে আব্দুস সালাম (৫৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ওই কৃষক উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের জোড়গাছা গ্রামের মৃত আব্দুস সোবহানের ছেলে।
বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুর আড়াইটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।জানা যায়, আ. সালাম নামের ঐ কৃষক গরুর ঘাস কাটার জন্য মাঠে যায়। প্রচন্ড তাপদাহের ভিতর কাজ করতে করতে হটাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। মাঠে অসুস্থ অবস্থায় পরে থাকতে দেখে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে মাথায় পানি দিতে থাকে। কিন্তু হাসপাতালে নেওয়ার আগেই কৃষক আ. সালামের মৃত্যু হয়।
এ ব্যাপারে সুঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান জিন্নাহ জানান, প্রচন্ড রোদে ফসলি আবাদে কাজ করার সময় তার মৃত্যু হয়েছে।
"> ">
বৃষ্টির প্রার্থনায় বীরগঞ্জে ‘সালতুল ইস্তিসকার’ নামাজ আদায় বগুড়ায় বৃষ্টির প্রত্যাশায় ইসতিকার নামাজ আদায় শেরপুরে প্রচন্ড তাপদাহে কৃষকের মৃত্যু বগুড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃত্যু বোচাগঞ্জে সড়ক নির্মান কাজে ধীরগতি দুর্ঘটনা আর ধুলোবালুতে অতিষ্ঠ পথচারী বীরগঞ্জে প্রাণি সম্পদ সেবা প্রদর্শণী সমাপনীতে পুরস্কার বিতরণ পীরগঞ্জে ভূমি অধিকার বিষয়ক সমাবেশ বগুড়ায় সিনেমা দেখলে বিরিয়ানি ফ্রি আমরা জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার হ্রাস করেছি : শেখ হাসিনা যে দোয়া পড়লে আপনার জন্য জান্নাত ফরিয়াদ করবে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশনে ত্রুটি, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ ৩১ মে আলোচনায় বসতে পাঠানো হয়েছে চিঠি ফের এফ এ কাপের ফাইনালে ম্যানচেস্টার ডার্বি আরও তিন দিনের ‘হিট অ্যালার্ট’ জারি বীরগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ টি পদে ১৩ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল সারাদেশে ইন্টারনেটের গতি কম ঈদযাত্রায় ৪১৯ দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩৮ দাবদাহে পুড়ছে দেশ, ঘরে-বাইরে কোথাও নেই স্বস্তি তাপদাহের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অ্যাসেম্বলি বন্ধ রাখার নির্দেশ সিসি ক্যামেরার আওতায় আসবে কক্সবাজার ছাতকের জাউয়া বাজারসহ তার আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি পীরগঞ্জে কৃষকলীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত সারাদেশে তিন দিনের হিট অ্যালার্ট জারি এখনই ‘প্রতিশোধে’ যাচ্ছে না ইরান নিজ বাহিনীতে ফিরে গেলেন র‌্যাবের মুখপাত্র মঈন শিশু হাসপাতালের আগুন নিয়ন্ত্রণে থার্ড টার্মিনালের দেয়াল ভেঙে ভেতরে বাস, প্রাণ গেল প্রকৌশলীর বীরগঞ্জে আশ্রয়ণ প্রকল্পের জরাজীর্ণ ব্যারাকের  ঘরের নির্মাণ কাজে জেলা প্রশাসক পরিদর্শন কাহারোলে  ছাত্রলীগের ঈদ ও বৈশাখী কনসার্ট অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গায় ইঞ্জিন বিকল, ৩ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক