খুঁজুন
শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪, ২৯ চৈত্র, ১৪৩০

গাজার শিশুরা অনাহারে মারা যাচ্ছে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৫ মার্চ, ২০২৪, ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ
গাজার শিশুরা অনাহারে মারা যাচ্ছে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

দক্ষিণ গাজা উপত্যকার রাফাহ শহরে খাবার নেওয়ার চেষ্টা করছে ফিলিস্তিনি শিশুরা। ছবিটি ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর তোলা

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে অবিরাম হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। স্কুল, শরণার্থী শিবির, মসজিদ, গির্জার পাশাপাশি হামলা হচ্ছে হাসপাতালেও। এতে করে গাজার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ইতোমধ্যেই ভেঙে পড়েছে।

এরসঙ্গে অবরুদ্ধ এই ভূখণ্ডটিতে দেখা দিয়েছে তীব্র মানবিক সংকট। পরিস্থিতি এতোটাই অমানবিক যে, গাজার উত্তরাঞ্চলের শিশুরা মারা যাচ্ছে অনাহারে। এমন তথ্যই জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রেইয়েসুস।

এমনকি গাজার শিশুরা গুরুতর মাত্রায় অপুষ্টির শিকার হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার (৫ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

টেড্রোস আধানম গেব্রেইয়েসুস বলেছেন, গত বছরের অক্টোবরে সংঘাত শুরুর পর থেকে এই সপ্তাহান্তে প্রথমবারের মতো আল-আওদা এবং কামাল আদওয়ান হাসপাতাল পরিদর্শন করে তার সংস্থাটি।

পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়া একটি পোস্টে হাসপাতাল পরিদর্শনের পর তিনি ‘গুরুতর ফলাফল’ পাওয়ার কথা বলেন। পোস্টে টেড্রোস লিখেছেন, খাবারের অভাবের ফলে ১০ জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে এবং গাজার শিশুরা ‘গুরুতর মাত্রায় অপুষ্টির’ শিকার হয়েছে। হাসপাতাল ভবনগুলোও ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় রোববার জানিয়েছে, কামাল আদওয়ান হাসপাতালে অপুষ্টি ও পানিশূন্যতার কারণে অন্তত ১৫ শিশু মারা গেছে। ফিলিস্তিনের সরকারি বার্তাসংস্থা ওয়াফা সোমবার জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ শহরের একটি হাসপাতালে রোববার ১৬তম শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

টেড্রোস আধানম গেব্রেইয়েসুস বলছেন, উত্তর গাজায় মারাত্মক মাত্রায় অপুষ্টি রয়েছে, শিশুরা অনাহারে মারা যাচ্ছে, জ্বালানি, খাদ্য ও চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহের গুরুতর ঘাটতি রয়েছে এবং হাসপাতাল ভবনগুলোও ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। গাজার এই অঞ্চলে আনুমানিক ৩ লাখ মানুষ খুবই অল্প খাদ্য বা বিশুদ্ধ পানি নিয়ে বসবাস করছে।

সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্সে দেওয়া ওই পোস্টে তিনি আরও বলেছেন, ‘খাদ্যের অভাবে ১০ জন শিশুর মৃত্যু হয়েছে।’

তিনি লিখেছেন, ‘গাজার উত্তরাঞ্চলে আরও নিয়মিত যাওয়ার সুযোগ পাওয়ার জন্য আমাদের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও গত কয়েক মাসের মধ্যে সেখানে ডব্লিউএইচওর প্রথম সফর ছিল এটিই। আল-আওদা হাসপাতালের পরিস্থিতি বিশেষভাবে খুবই ভয়াবহ, সেখানকার একটি ভবন ধ্বংস হয়ে গেছে।’

এর আগে জাতিসংঘ গত সপ্তাহে বলেছিল, গাজায় দুর্ভিক্ষ ‘প্রায় অনিবার্য’। জাতিসংঘের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সতর্ক করে বলেছেন, গাজা উপত্যকাজুড়ে কমপক্ষে ৫ লাখ ৭৬ হাজার মানুষ – যা ভূখণ্ডটির মোট জনসংখ্যার এক-চতুর্থাংশ – বিপর্যয়কর মাত্রার খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার সম্মুখীন হয়েছেন এবং গাজার উত্তরাঞ্চলে দুই বছরের কম বয়সী প্রতি ছয়জন শিশুর মধ্যে একজন তীব্র অপুষ্টিতে ভুগছে।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের আঞ্চলিক পরিচালক বলেছেন, ‘আমরা যে শিশু মৃত্যুর আশঙ্কা করছিলাম তা এখানে বিদ্যমান রয়েছে। অপুষ্টি গাজা উপত্যকাকে ধ্বংস করছে।’

মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকায় ইউনিসেফের আঞ্চলিক পরিচালক অ্যাডেল খোদর এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘গাজার অবশিষ্ট যে কয়েকটি হাসপাতাল চালু আছে তার মধ্যে কোথাও কোথাও সম্ভবত আরও বেশি শিশু তাদের জীবন বাঁচানোর জন্য লড়াই করছে এবং ভূখণ্ডটির উত্তরাঞ্চলে সম্ভবত আরও বেশি শিশু সঠিক যত্ন ও পরিষেবা পাচ্ছে না।’

তিনি আরও বলেছেন, ‘এই মর্মান্তিক এবং ভয়াবহ মৃত্যু মানবসৃষ্ট, পূর্বাভাসযোগ্য এবং সম্পূর্ণরূপে প্রতিরোধযোগ্য।’

জাতিসংঘের এই সংস্থার তথ্য অনুসারে, প্রায় ১৬ শতাংশ বা দুই বছরের কম বয়সী প্রতি ছয়জন শিশুর মধ্যে একজন উত্তর গাজায় তীব্রভাবে অপুষ্টিতে ভুগছে। অ্যাডেল খোদর সতর্ক করে বলেন, ‘এখন, আমরা যে শিশু মৃত্যুর আশঙ্কা করছিলাম তা এখানে বিদ্যমান রয়েছে এবং যুদ্ধ শেষ না হলে ও মানবিক ত্রাণ বিতরণে প্রতিবন্ধকতাগুলো অবিলম্বে সমাধান করা না হলে তা (শিশু মৃত্যু) দ্রুত বাড়তে পারে।’

উল্লেখ্য, গত বছরের ৭ অক্টোবর হামাসের নজিরবিহীন আন্তঃসীমান্ত হামলার পর থেকে ইসরায়েল গাজা উপত্যকায় অবিরাম বিমান ও স্থল হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। ইসরায়েলি এই হামলায় হাসপাতাল, স্কুল, শরণার্থী শিবির, মসজিদ, গির্জাসহ হাজার হাজার ভবন ক্ষতিগ্রস্ত বা ধ্বংস হয়ে গেছে।

ফিলিস্তিনের গাজা ভূখণ্ডের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গাজায় ইসরায়েলের আক্রমণের ফলে এখন পর্যন্ত ৩০ হাজার ৫৩৪ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও ৭১ হাজার ৯৮০ জন।

এদিকে ইসরায়েল গাজার ওপর কঠোর অবরোধ আরোপ করে রেখেছে এবং এই পদক্ষেপ গাজার ফিলিস্তিনিদের বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলের বাসিন্দাদের অনাহারের দ্বারপ্রান্তে ঠেলে দিয়েছে।

উত্তরের কণ্ঠ/পিআর

বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৫৬ অপরাহ্ণ
বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় ২নং পলাশবাড়ী ইউনিয়নে নন্দাইগাঁও মুসলিম যুব সমাজের উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার (১০) এপ্রিল বিকেল ৩ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত দরিদ্র ও অসহায় ১০৫ টি পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ঈদ সামগ্রী হিসেবে ছিল মাংস। ঈদ সামগ্রী বিতরণ করার সময় উপস্থিত ছিলেন নন্দাইগাঁও মুসলিম যুব সমাজের সভাপতি মাহমুদুল হাসান শাহ্,সহ-সভাপতি জাহাঈীর আলম, সাধারন সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম,কার্যকরী সদস্য ইমাম হাসান মাহিন শাহ্, প্রমুখ।

নন্দাইগাঁও মুসলিম যুব সমাজের সভাপতি মাহমুদুল শাহ্ বলেন, ‘ধনী ও গরিবদের ঈদ আনন্দে কোনো পার্থক্য নেই। তাই আনন্দ ভাগাভাগি করতে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও আমাদের এ সামান্য প্রচেষ্টা’।

আমাদের এই আয়োজনে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের সবার জন্য দোয়া রইলো।

উত্তরের কন্ঠ /এ,এস

গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: বুধবার, ১০ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৪৪ অপরাহ্ণ
গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের

দীর্ঘ একমাস সিয়াম সাধনার পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উদযাপিত হচ্ছে মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। বরাবরের মতো এবারও বিশ্বজুড়ে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের প্রধান এই ধর্মীয় উৎসব পালিত হচ্ছে।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মতো ফিলিস্তিনের গাজা ভূখণ্ডেও পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। তবে সেখানে বাকি বিশ্বের মতো নেই ঈদের আনন্দ, আছে ধ্বংসযজ্ঞ, মানুষের মৃত্যু, আর আছে প্রিয়জন হারানোর বেদনা।

এর মধ্যেই ঈদ উদযাপন করছেন ফিলিস্তিনিরা। এমনকি গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদেই ঈদের নামাজ আদায় করেছেন তারা। বুধবার (১০ এপ্রিল) এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, ফিলিস্তিনিরা বুধবার গাজা উপত্যকার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ শহরের আল-ফারুক মসজিদের ধ্বংসাবশেষে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছে। মসজিদের ধ্বংসাবশেষে ফিলিস্তিনিদের ঈদের নামাজের ছবিও সামনে এসেছে।

সেখানে বুধবার সকালে রাফাহ শহরের ওই মসজিদের ধ্বংসাবশেষের পাশেই ফিলিস্তিনিদের ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করতে দেখা যায়।

এদিকে গাজার রাফাহতে ঈদের দিনও ইসরায়েলি ড্রোন সেখানকার আকাশে চক্কর দিচ্ছে। আল জাজিরা বলছে, ইসরায়েলি সামরিক ড্রোনগুলো এখনও (রাফাহ) জেলার এই অংশে চক্কর দিচ্ছে। আর এর লক্ষ্য শুধুমাত্র ফিলিস্তিনিদের এটিই মনে করিয়ে দেওয়া যে, আনন্দ ও উদযাপনের এমন দিনেও তাদের জন্য নিরাপত্তা বলে কিছু নেই।

তবুও, এই নিরাপত্তাহীনতাকে পেছনে ঠেলেই ফিলিস্তিনিরা আজ রাফাহতে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন। এছাড়া নিজেদের চারপাশে ঘটে যাওয়া ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ, দুঃখ, আর্তনাদ ও শোকের মধ্যেও ফিলিস্তিনিরা একত্রিত হচ্ছেন (এবং) একে অপরকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন।

এর মধ্যে একটি হামলা চালানো হয় নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে। মারাত্মক এই হামলায় অন্তত ১৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের চারজনই শিশু।

যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: বুধবার, ১০ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৪০ অপরাহ্ণ
যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি

আসন্ন ঈদে মুক্তি পাচ্ছে শাকিব খানের নতুন সিনেমা ‘রাজকুমার’। প্রথমবারের মতো মার্কিন অভিনেত্রী কোর্টনি কফির সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন ঢালিউডের বর্তমান সময়ের শীর্ষ এই নায়ক। 

সিনেমা মুক্তির আগেই শাকিব খানের নতুন সিনেমার জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন ‘প্রিয়তমা’ খ্যাত অভিনেত্রী ইধিকা পাল। যার সঙ্গেই গেল ঈদে প্রেক্ষাগৃহ মাতিয়েছেন শাকিব। গত সোমবার নিজের ফেসবুক পেজে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে ‘রাজকুমার’ সিনেমার প্রতি শুভেচ্ছাবার্তা প্রকাশ করেন এই অভিনেত্রী।

বিষয়টি নজরে আসার পর ইধিকার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন রাজকুমার সিনেমার নায়িকা কোর্টনি কফি। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন তিনি। সেখান থেকেই ইধিকার প্রতি নিজের বার্তা প্রকাশ করেছেন এই অভিনেত্রী।

ইধিকার শুভকামনা বার্তার প্রত্যুত্তরে কোর্টনি তার ফেসবুক লিখেছেন, ইধিকা পালের মহানুভবতার জন্য তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই। ‘রাজকুমার’ ও আমাদের প্রতি শুভকামনা জানিয়ে চমৎকার পোস্টটি দেখে ভীষণ মুগ্ধ হয়েছি। ইধিকার বিষয়টি আমাকে মনে করিয়ে দিয়েছে, প্রথম দিন তার সঙ্গে দেখা হওয়ার পর আমার প্রতি উদারতা ও অনুগ্রহের কথা।
ইধিকার প্রশংসা করে অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, আমরা জানি, ‘প্রিয়তমা’র নায়িকা হিসেবে তিনি ইতোমধ্যে বাংলাদেশে ভালোই প্রভাব বিস্তার করেছেন, যা আমি কেবল আশা করতে পারি। কারণ, অনুসারী হিসেবে তিনি একটা সুন্দর পথ তৈরি করে দিয়েছেন।

কোর্টনি লেখেন, ‘রাজকুমার’ সিনেমাটি তৈরি হতে যা যা করণীয়, সবই ‘প্রিয়তমা’ টিম আন্তরিকভাবে করেছে। আমি ইধিকা পাল এবং সব কলাকুশলীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমি জানি, আমি তোমার ‘প্রিয়তমা’র বিকল্প হতে পরব না, তবে আমি আশা করছি, আমার আগে করা সব কাজকে ভালোভাবেই ছাপিয়ে যেতে পারব।’

‘রাজকুমার’ সিনেমার শুটিং শুরুর আগে ঢাকায় এসেছিলেন ইধিকা পাল। দেখা করে গেছেন শাকিব খান ও কোর্টনি কফির সঙ্গে। সেসময় আড্ডার পাশাপাশি ফটোসেশনেও অংশ নেন তারা।

এর আগে ইধিকার তার ফেসবুকে লেখেন, ‘আমি আপনাদের সকলের প্রিয়তমা হিসেবে ছবি মুক্তির ঠিক আগে, রাজকুমার ছবির সমস্ত টিম, প্রযোজক আরশাদ আদনান, পরিচালক হিমেল আশরাফ ভাই ও অবশ্যই বাংলাদেশের সকলের হৃদয়ের রাজকুমার শাকিব খানকে জানাই অসংখ্য অভিনন্দন ও শুভ কামনা। তর্ক বিতর্ক, ভালো এবং আরো ভালোর মাঝের ব্যবধানটুকু সরিয়ে নিলে যা মানুষকে প্রতিদিন বাঁচিয়ে রাখে, সেটা প্রত্যাশা।

প্রত্যাশা এক অমলিন অনুভূতি, সেই অনুভূতির ওপর ভিত্তি করেই এই ছবির জয়জয়কার চলুক; সকলের মনের কাছাকাছি থাক রাজকুমার। আপনাদের প্রিয়তমা হয়ে আমি এই প্রত্যাশাই রাখলাম। ভিনদেশি ইধিকাকে প্রিয়তমা করে তুলে যে ভালোবাসা আপামর বাংলাদেশ আমায় দিয়েছে তা আমার চিরকালের সম্পদ, তার পেছনে যে মানুষ গুলোর অবদান সব থেকে বেশি, সেই সুপারস্টার শাকিব খান, আরশাদ আদনান এবং হিমেল আশরাফ ভাইয়ের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ। সকলকে বলছি, হলে গিয়ে রাজকুমার দেখুন। সকলকে পবিত্র ঈদের আগাম শুভেচ্ছা, শুভ হোক।’

"> ">
বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি বিছনাকন্দি ইউপির সাধারণ নির্বাচন স্থগিত যাত্রী সংকটে ধুঁকছে গাবতলী সৌদির সঙ্গে মিল রেখে ঝিনাইদহে ঈদুল ফিতরের জামাত ঈদের নামাজের জন্য প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ ঈদের একদিন আগেই ফাঁকা উত্তরের মহাসড়ক আমিরাতে ঈদ উদযাপন করছেন প্রবাসীরা ‘আজ ঈদ হলে বাড়ি যাওয়া হতো না’ চাঁদপুরে অর্ধশতাধিক গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপন পদ্মা সেতুতে টোল আদায়ে নতুন রেকর্ড মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে দিনাজপুরে ঈদ উদযাপন ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক ফাঁকা, ঈদযাত্রায় নেই চিরচেনা যানজট প্রস্তুত হচ্ছে এশিয়ার সবচেয়ে বড় ঈদগাহ আজ ঈদ করবেন লক্ষ্মীপুরের সহস্রাধিক মানুষ ধ্বংস-মৃত্যু-বেদনার মধ্যেই ফিলিস্তিনে ঈদ, হামাসের শুভেচ্ছা নরসিংদীর ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে পারেন এমপি-মন্ত্রীর আত্মীয়রা নরসিংদী ঈদের কেনাকাটা করতে যাওয়ার পথে প্রাণ গেল কিশোরীর জয়পুরহাটের শ্রমিকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  কাহারোলে নব জীবন নারী উন্নয়ন সংস্থার ঈদ উপহার বিতরণ আজ বান্দরবান যাচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পাকিস্তানে ২০ জনকে হত্যার অভিযোগ, যা বলল ভারত শবে কদর রজনীতে দেশ ও মুসলিম জাহানের কল্যাণ কামনা প্রধানমন্ত্রীর বগুড়ায় বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে নিহত ৩ ঈদে ট্রেনে যাত্রীদের কোনো ভোগান্তি নেই: রেলমন্ত্রী ঈদে নগরবাসীর জন্য ডিএমপির ১৪ পরামর্শ আজ পবিত্র লাইলাতুল কদর প্রেমিককে বাড়িতে রাখতে স্বামীর কাছে আবদার স্ত্রীর, শেষে যা ঘটল একমাত্র ছেলের কাছে ঠাঁই হয়নি হামিদ মাস্টারের