খুঁজুন
শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ৩০ চৈত্র, ১৪৩০

বিদ্যালয়ে সংঘর্ষ

ভয়ে ক্লাসে আসছে না শিক্ষার্থীরা

উপজেলা প্রতিবেদক, ওসমানী নগর
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৮ আগস্ট, ২০২৩, ৬:৩২ অপরাহ্ণ
ভয়ে ক্লাসে আসছে না শিক্ষার্থীরা

বিদ্যালয়ের সীমানা নিয়ে সংঘর্ষের পর ওসমানীনগরের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থী শূন্য হয়ে পড়েছে। প্রধান শিক্ষক নিরাপত্তা নিশ্চিতের আশ্বাস দিলেও ভরসা পাচ্ছেন না অভিভাবকরা। বরং ভয় ও উৎকণ্ঠায় দিন কাটছে তাদের।

জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার হামতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সীমানা দখল করে একটি ডাস্টবিন নির্মাণ করে প্রতিবেশী মতিউর রহমান গংরা। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করলে মতিউররা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। এরপ্রেক্ষিতে গত ২ আগস্ট দুপুর ২টার দিকে ক্লাস চলাকালিন সময়ে মতিউর গংরা অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিকে চ্যালেঞ্জ করলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা ভয়ে দিগ্বিদিক ছুটাছুটি করে যে যার মতো বাড়ি পৌঁছায়।

সংর্ঘষের সময় তড়িঘড়ি করে প্রধান শিক্ষক স্কুল ছুটি দিলে বিদ্যালয় পার্শ্ববর্তী একটি বাড়িতে আটকা পড়েন দুই শিক্ষিকা। ঘন্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে ২ জন গুলিবিদ্ধসহ ২০ জন আহত হন। ওইদিন রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মতিউর রহমানের ঘরের পাশ থেকে দেশীয় পাইপ গান, গুলি, রামদা, লোহার পাইপ ও চাপাতি উদ্ধার ও সংঘর্ষে জড়িত সন্দেহে ৬ জনকে আটক করে।

কিন্তু ঘটনার মূলহোতা মতিউর ধরা না পড়ায় আবারও সংঘর্ষের আশঙ্কায় বাচ্চাদের স্কুলে পাঠানো বন্ধ করে দেন অভিভাবকরা। গতকাল দুপুরে হামতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে পিনপতন নিরবতা লক্ষ্য করা যায়। বিদ্যালয়ের অফিসে বসে থাকা শিক্ষকদের চোখ-মুখে অজানা আতঙ্ক। শ্রেণিকক্ষে ক্লাস করছে ১জন মাত্র শিক্ষার্থী। বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ক্লাস চলাকালিন সময়ে বিদ্যালয়ের ভিতরে হামলার ঘটনায় ভয়ে বাচ্চারা স্কুলে আসছে না। অভিভাবকরা বাচ্চাদের বিদ্যালয়ে পাঠাবেন কি-না তা নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছেন।

এদিকে, সংঘর্ষের ঘটনায় দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলায় গ্রামের ৪৬ জনকে আসামী করা হয়েছে। গ্রেফতার আতঙ্কে বাড়িতে কোন পুরুষ মানুষ না থাকায় বাচ্চাদের সারাক্ষণ নিজেদের কাছেই রাখছেন মায়েরা। বিদ্যালয়ে ক্লাস করতে আসা ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী তামিম মিয়া জানায়, স্কুলে মারামারি হওয়ার পর থেকে গত কদিন সে একাই ক্লাস করছে। স্যার বলেছেন-স্কুলে আসলে কিছু হবে না, তবুও ফাঁকা স্কুলে তার ভয় লাগে। গ্রামের সারওয়ার জাহান, ‘আজিজুর রহমান বলেন, স্কুলের জায়গা দখলের বিষয়টি প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে লিখিতভাবে জানানোর কারণে দখলদার পক্ষ স্কুলের মধ্যে আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে বেশ কজন আহত হন।

এ ঘটনায় আতঙ্কে বিদ্যালয়ে যাচ্ছে না কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। এদিকে দখলদার পক্ষ আমাদের বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও পঞ্চায়েতের ২৬ জনকে আসামী করে মামলা করেছেন। স্কুলের জায়গা দখলের প্রতিবাদ করায় আজ আমরা আসামি হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি। হামতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শহিদুর রহমান শিবলু বলেন, ‘বিদ্যালয়ের পাশে মতিউরের বাড়ি থাকায় আবারও যদি সে হামলা চালায়, শিক্ষার্থীদের মধ্যে সে ভয় বিরাজ করছে। হামতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সালেহ আহমদ বলেন, ‘করোনার পর আমাদের বিদ্যালয়ে এমনিতেই শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে গেছে।

বর্তমানে ৭২ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। গড় উপস্থিতি ৮০/৮৫ ভাগ। কিন্তু জায়গা নিয়ে সংঘর্ষের পর বাচ্চারা বিদ্যালয়ে আসছে না। সে বিষয়টি আমি ইতোমধ্যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। অভিভাবকদের অভয় দিয়ে বাচ্চাদের বিদ্যালয়ে নিয়ে আসতে প্রশাসন থেকে আমায় বলা হয়েছে। কিন্তু আমার আশ্বাসেও অভিভাবকরা ভরসা পাচ্ছেন না। গ্রামের সবার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। উমরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: গোলাম কিবরিয়া বলেন, বিষয়টি এলাকার সবাইকে নিয়ে সমাধান করা হবে। শিক্ষার্থীর অভিবাকদের আহব্বান করি আপনারা ভয় না পেয়ে বাচ্চাদের বিদ্যালয়ে পাঠান। সুষ্ঠু তদন্তো করে দোষীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।

ওসমানীনগর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা দিলীপময় দাশ চৌধুরী বলেন, ‘সংঘর্ষের পর থেকে হামতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার আশঙ্কাজনক ভাবে কমে গেছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককের সাথে আমাদের নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের ভয় দূর করে বিদ্যালয়মুখি করতে আমরা চেষ্টা করছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নীলিমা রায়হানা জানান, জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের বিষয়টি এলাকার সবাইকে নিয়ে সমাধান করা হবে। অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা ভয় না পেয়ে বাচ্চাদের বিদ্যালয়ে পাঠান। সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।

বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৫৬ অপরাহ্ণ
বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় ২নং পলাশবাড়ী ইউনিয়নে নন্দাইগাঁও মুসলিম যুব সমাজের উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার (১০) এপ্রিল বিকেল ৩ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত দরিদ্র ও অসহায় ১০৫ টি পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ঈদ সামগ্রী হিসেবে ছিল মাংস। ঈদ সামগ্রী বিতরণ করার সময় উপস্থিত ছিলেন নন্দাইগাঁও মুসলিম যুব সমাজের সভাপতি মাহমুদুল হাসান শাহ্,সহ-সভাপতি জাহাঈীর আলম, সাধারন সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম,কার্যকরী সদস্য ইমাম হাসান মাহিন শাহ্, প্রমুখ।

নন্দাইগাঁও মুসলিম যুব সমাজের সভাপতি মাহমুদুল শাহ্ বলেন, ‘ধনী ও গরিবদের ঈদ আনন্দে কোনো পার্থক্য নেই। তাই আনন্দ ভাগাভাগি করতে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও আমাদের এ সামান্য প্রচেষ্টা’।

আমাদের এই আয়োজনে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের সবার জন্য দোয়া রইলো।

উত্তরের কন্ঠ /এ,এস

গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: বুধবার, ১০ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৪৪ অপরাহ্ণ
গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের

দীর্ঘ একমাস সিয়াম সাধনার পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উদযাপিত হচ্ছে মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। বরাবরের মতো এবারও বিশ্বজুড়ে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের প্রধান এই ধর্মীয় উৎসব পালিত হচ্ছে।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মতো ফিলিস্তিনের গাজা ভূখণ্ডেও পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। তবে সেখানে বাকি বিশ্বের মতো নেই ঈদের আনন্দ, আছে ধ্বংসযজ্ঞ, মানুষের মৃত্যু, আর আছে প্রিয়জন হারানোর বেদনা।

এর মধ্যেই ঈদ উদযাপন করছেন ফিলিস্তিনিরা। এমনকি গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদেই ঈদের নামাজ আদায় করেছেন তারা। বুধবার (১০ এপ্রিল) এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, ফিলিস্তিনিরা বুধবার গাজা উপত্যকার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ শহরের আল-ফারুক মসজিদের ধ্বংসাবশেষে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছে। মসজিদের ধ্বংসাবশেষে ফিলিস্তিনিদের ঈদের নামাজের ছবিও সামনে এসেছে।

সেখানে বুধবার সকালে রাফাহ শহরের ওই মসজিদের ধ্বংসাবশেষের পাশেই ফিলিস্তিনিদের ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করতে দেখা যায়।

এদিকে গাজার রাফাহতে ঈদের দিনও ইসরায়েলি ড্রোন সেখানকার আকাশে চক্কর দিচ্ছে। আল জাজিরা বলছে, ইসরায়েলি সামরিক ড্রোনগুলো এখনও (রাফাহ) জেলার এই অংশে চক্কর দিচ্ছে। আর এর লক্ষ্য শুধুমাত্র ফিলিস্তিনিদের এটিই মনে করিয়ে দেওয়া যে, আনন্দ ও উদযাপনের এমন দিনেও তাদের জন্য নিরাপত্তা বলে কিছু নেই।

তবুও, এই নিরাপত্তাহীনতাকে পেছনে ঠেলেই ফিলিস্তিনিরা আজ রাফাহতে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন। এছাড়া নিজেদের চারপাশে ঘটে যাওয়া ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ, দুঃখ, আর্তনাদ ও শোকের মধ্যেও ফিলিস্তিনিরা একত্রিত হচ্ছেন (এবং) একে অপরকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন।

এর মধ্যে একটি হামলা চালানো হয় নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে। মারাত্মক এই হামলায় অন্তত ১৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের চারজনই শিশু।

যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: বুধবার, ১০ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:৪০ অপরাহ্ণ
যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি

আসন্ন ঈদে মুক্তি পাচ্ছে শাকিব খানের নতুন সিনেমা ‘রাজকুমার’। প্রথমবারের মতো মার্কিন অভিনেত্রী কোর্টনি কফির সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন ঢালিউডের বর্তমান সময়ের শীর্ষ এই নায়ক। 

সিনেমা মুক্তির আগেই শাকিব খানের নতুন সিনেমার জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন ‘প্রিয়তমা’ খ্যাত অভিনেত্রী ইধিকা পাল। যার সঙ্গেই গেল ঈদে প্রেক্ষাগৃহ মাতিয়েছেন শাকিব। গত সোমবার নিজের ফেসবুক পেজে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে ‘রাজকুমার’ সিনেমার প্রতি শুভেচ্ছাবার্তা প্রকাশ করেন এই অভিনেত্রী।

বিষয়টি নজরে আসার পর ইধিকার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন রাজকুমার সিনেমার নায়িকা কোর্টনি কফি। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন তিনি। সেখান থেকেই ইধিকার প্রতি নিজের বার্তা প্রকাশ করেছেন এই অভিনেত্রী।

ইধিকার শুভকামনা বার্তার প্রত্যুত্তরে কোর্টনি তার ফেসবুক লিখেছেন, ইধিকা পালের মহানুভবতার জন্য তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই। ‘রাজকুমার’ ও আমাদের প্রতি শুভকামনা জানিয়ে চমৎকার পোস্টটি দেখে ভীষণ মুগ্ধ হয়েছি। ইধিকার বিষয়টি আমাকে মনে করিয়ে দিয়েছে, প্রথম দিন তার সঙ্গে দেখা হওয়ার পর আমার প্রতি উদারতা ও অনুগ্রহের কথা।
ইধিকার প্রশংসা করে অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, আমরা জানি, ‘প্রিয়তমা’র নায়িকা হিসেবে তিনি ইতোমধ্যে বাংলাদেশে ভালোই প্রভাব বিস্তার করেছেন, যা আমি কেবল আশা করতে পারি। কারণ, অনুসারী হিসেবে তিনি একটা সুন্দর পথ তৈরি করে দিয়েছেন।

কোর্টনি লেখেন, ‘রাজকুমার’ সিনেমাটি তৈরি হতে যা যা করণীয়, সবই ‘প্রিয়তমা’ টিম আন্তরিকভাবে করেছে। আমি ইধিকা পাল এবং সব কলাকুশলীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমি জানি, আমি তোমার ‘প্রিয়তমা’র বিকল্প হতে পরব না, তবে আমি আশা করছি, আমার আগে করা সব কাজকে ভালোভাবেই ছাপিয়ে যেতে পারব।’

‘রাজকুমার’ সিনেমার শুটিং শুরুর আগে ঢাকায় এসেছিলেন ইধিকা পাল। দেখা করে গেছেন শাকিব খান ও কোর্টনি কফির সঙ্গে। সেসময় আড্ডার পাশাপাশি ফটোসেশনেও অংশ নেন তারা।

এর আগে ইধিকার তার ফেসবুকে লেখেন, ‘আমি আপনাদের সকলের প্রিয়তমা হিসেবে ছবি মুক্তির ঠিক আগে, রাজকুমার ছবির সমস্ত টিম, প্রযোজক আরশাদ আদনান, পরিচালক হিমেল আশরাফ ভাই ও অবশ্যই বাংলাদেশের সকলের হৃদয়ের রাজকুমার শাকিব খানকে জানাই অসংখ্য অভিনন্দন ও শুভ কামনা। তর্ক বিতর্ক, ভালো এবং আরো ভালোর মাঝের ব্যবধানটুকু সরিয়ে নিলে যা মানুষকে প্রতিদিন বাঁচিয়ে রাখে, সেটা প্রত্যাশা।

প্রত্যাশা এক অমলিন অনুভূতি, সেই অনুভূতির ওপর ভিত্তি করেই এই ছবির জয়জয়কার চলুক; সকলের মনের কাছাকাছি থাক রাজকুমার। আপনাদের প্রিয়তমা হয়ে আমি এই প্রত্যাশাই রাখলাম। ভিনদেশি ইধিকাকে প্রিয়তমা করে তুলে যে ভালোবাসা আপামর বাংলাদেশ আমায় দিয়েছে তা আমার চিরকালের সম্পদ, তার পেছনে যে মানুষ গুলোর অবদান সব থেকে বেশি, সেই সুপারস্টার শাকিব খান, আরশাদ আদনান এবং হিমেল আশরাফ ভাইয়ের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ। সকলকে বলছি, হলে গিয়ে রাজকুমার দেখুন। সকলকে পবিত্র ঈদের আগাম শুভেচ্ছা, শুভ হোক।’

"> ">
বীরগঞ্জে ১০৫ টি পরিবারে ঈদ উপলক্ষে মাংস বিতরণ গাজায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় ফিলিস্তিনিদের যুক্তরাষ্ট্র থেকেই ইধিকার মন্তব্যের জবাব দিলেন কোর্টনি বিছনাকন্দি ইউপির সাধারণ নির্বাচন স্থগিত যাত্রী সংকটে ধুঁকছে গাবতলী সৌদির সঙ্গে মিল রেখে ঝিনাইদহে ঈদুল ফিতরের জামাত ঈদের নামাজের জন্য প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ ঈদের একদিন আগেই ফাঁকা উত্তরের মহাসড়ক আমিরাতে ঈদ উদযাপন করছেন প্রবাসীরা ‘আজ ঈদ হলে বাড়ি যাওয়া হতো না’ চাঁদপুরে অর্ধশতাধিক গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপন পদ্মা সেতুতে টোল আদায়ে নতুন রেকর্ড মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে দিনাজপুরে ঈদ উদযাপন ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক ফাঁকা, ঈদযাত্রায় নেই চিরচেনা যানজট প্রস্তুত হচ্ছে এশিয়ার সবচেয়ে বড় ঈদগাহ আজ ঈদ করবেন লক্ষ্মীপুরের সহস্রাধিক মানুষ ধ্বংস-মৃত্যু-বেদনার মধ্যেই ফিলিস্তিনে ঈদ, হামাসের শুভেচ্ছা নরসিংদীর ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে পারেন এমপি-মন্ত্রীর আত্মীয়রা নরসিংদী ঈদের কেনাকাটা করতে যাওয়ার পথে প্রাণ গেল কিশোরীর জয়পুরহাটের শ্রমিকদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  কাহারোলে নব জীবন নারী উন্নয়ন সংস্থার ঈদ উপহার বিতরণ আজ বান্দরবান যাচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পাকিস্তানে ২০ জনকে হত্যার অভিযোগ, যা বলল ভারত শবে কদর রজনীতে দেশ ও মুসলিম জাহানের কল্যাণ কামনা প্রধানমন্ত্রীর বগুড়ায় বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে নিহত ৩ ঈদে ট্রেনে যাত্রীদের কোনো ভোগান্তি নেই: রেলমন্ত্রী ঈদে নগরবাসীর জন্য ডিএমপির ১৪ পরামর্শ আজ পবিত্র লাইলাতুল কদর প্রেমিককে বাড়িতে রাখতে স্বামীর কাছে আবদার স্ত্রীর, শেষে যা ঘটল একমাত্র ছেলের কাছে ঠাঁই হয়নি হামিদ মাস্টারের